পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি। ছবি সংগৃহীত

প্রাণহানি এড়াতে চট্টগ্রামে ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড় থেকে অবৈধ বসতি উচ্ছেদে ফের অভিযান শুরু করেছে প্রশাসন।

বুধবার দুপুরে নগরীর আকবর শাহ থানা এলাকায় পরিবেশ অধিদপ্তর সংলগ্ন পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে অর্ধশত বসতঘর উচ্ছেদ করা হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সদর সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইসমাইল হোসেন এবং কাট্টলী সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. তৌহিদুল ইসলাম।

বেলা ১১টা থেকে সিএমপি, রেলওয়ে ও পরিবেশ অধিদপ্তরের সহায়তায় শুরু হওয়া উচ্ছেদ অভিযান চলে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত। অভিযানে ঝুঁকিপূর্ণ ওই পাহাড় থেকে ৫০টি ঘরবাড়ি উচ্ছেদ করে ১৫৬ জন বসবাসকারীকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইসমাইল হোসেন বলেন, বর্ষায় ভারী বর্ষণে পাহাড় ধসের মতো কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে প্রাণহানি যাতে না হয়, এ জন্য ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে বসবাসকারীদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তৌহিদুল ইসলাম জানান, এই পাহাড়ে প্রশাসনের তালিকাভুক্ত ঝুঁকিপূর্ণ বসতি আছে ১০টি। তবে এর বাইরে অবৈধ রয়েছে ৪০টি। সবগুলোই উচ্ছেদ করা হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহ পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হবে নগরীর ঝুঁকিপূর্ণ ১৪টি পাহাড়ে।

তিনি আরও বলেন, নগরীর সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে ১৭টি ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড় রয়েছে। এসব পাহাড়ের পাদদেশে অবৈধ স্থাপনা তৈরি করে মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে বাস করছে ৮৩৫টি পরিবার। উচ্ছেদের পাশাপাশি ফের যাতে তারা বসবাস শুরু করতে না পারে এ জন্য গ্যাস, বিদ্যুৎ এবং পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here